মেনু নির্বাচন করুন
খবর

বরিশালে জেলা প্রশাসন এর পক্ষ থেকে শেবাচিমের করোনা যোদ্ধা চিকিৎসক ও নার্সদের সুবিধার্থে থ্রি স্টার মানের হোটেল বরাদ্দ।

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় এরিমধ্য জেলা প্রশাসন বরিশালের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে নানা কর্মসূচি তারি ধারাবাহিকতায় আজ পহেলা মে শুক্রবার থেকে দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহত হাসপাতাল শেবাচিমের করোনা যোদ্ধা হিসেবে পরিচিত শতাধিক চিকিৎসক, নার্স এবং অন্যান্যদের জন্য জেলা প্রশাসন বরিশালের পক্ষ থেকে বরিশালের ৭ টি উন্নত মানের থ্রি স্টার মানের হোটেল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। যাতে করে করোনা যোদ্ধারা করোনা রুগীদের সেবা নিশ্চিত করে নিজের এবং নিজের পরিবারের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে পারে। হোটেল গুলো হলো গ্রান্ড পার্ক, সেডোনা, এরিনা, এথেনা, হোটেল ইস্টান, হোটেল আলি এবং রোদেলা। গতকাল হোটেল গ্রান্ড পার্কে ১০ জন ডাক্তার এবং হোটেল সেডোনায় ২৭ জন ডাক্তার এবং নার্স উঠেছে। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য হোটেল গুলোতে ডাক্তার-নার্স সহ অন্যান্যরা উঠবেন বলে জানা গেছে। বরিশাল জেলায় করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় এর পূর্বেও জেলা প্রশাসন এক অন্যান্য ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ গ্রহণ করেন শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের চিকিৎসা কার্যক্রম নির্বিঘ্ন করার লক্ষ্যে সেবাচিমের চিকিৎসক, নার্স ও চিকিৎসা কর্মীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে দুইটি বাস সার্ভিস চালু করলেন জেলা প্রশাসন এস, এম, অজিয়র রহমান। জেলা প্রশাসক বলেন, শেবাচিমের চিকিৎসক-নার্সসহ অন্যান্যরা যাতে নিজেরা সুস্থ থেকে করোনা রুগীদের সার্বক্ষণিক সেবা প্রদান করতে পারে সেই জন্য এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব মোকাবেলার করার জন্য জেলা প্রশাসন সর্বদা তৎপর রয়েছে। করোনা মোকাবেলায় যা যা করণীয় তার সব কিছুই করবে জেলা প্রশাসন জনস্বার্থে এ ধরনের উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।

ছবি


ফাইল


প্রকাশনের তারিখ

২০২০-০৫-০১

আর্কাইভ তারিখ

২০২০-০৬-০৬


Share with :

Facebook Twitter